করানো শনাক্তে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির পর এবার ওষুধ আবিষ্কার করল ইরান

আন্তর্জাতিক

করোনাভাইরাস শনাক্তে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি উদ্ভাবনের পর এবার প্রাণঘাতী এই ভাইরাস থেকে সেরে উঠার ওষুধও আবিষ্কার করল ইরান।

ওষুধটির জেনেরিক নাম ‘ফ্যাভিপিরাভির হলে এটি টি-৭০৫’।  তবে এটি আভিজেন নামেও কোথাও কোথাও পরিচিত।

এ ওষুধ তৈরির কথা জানিয়েছেন তেহরানের শীর্ষস্থানীয় হাসপাতাল মাসিহ দানেশভারির প্রধান ডা. আলী আকবর বেলায়েতি। মাসিহ দানেশভারি হাসপাতালেই সবচেয়ে বেশি চিকিৎসা করানো হচ্ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের।

চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত হাসপাতালের কর্মীদের সঙ্গে বৈঠকের সময় ডা. আলী আকবর বেলায়েতি আরও জানান, তেহরানের শহীদ বেহেশতি চিকিৎসা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগ ওষুধটি তৈরি করেছে এবং তা হাসপাতালকে সরবরাহ করেছে।

তেহরানের এ হাসপাতালে করোনা রোগীদের সব চিকিৎসা-সেবা ফ্রি  দেওয়া হয় বলেও জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. আলী আকবর বেলায়েতি ইরানের সর্বোচ্চ নেতার পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টার দায়িত্বও পালন করছেন।

এর আগে, করোনা শনাক্তের অত্যাধুনিক প্রযুক্তি আবিষ্কার করে ইরান। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা এআই এবং সিটি স্ক্যানের সাহায্যে ইরানের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি এ প্রক্রিয়ায় শনাক্ত করা যাবে করোনার সংক্রমণ।

ইরানের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট সৌরেনা সাত্তারির উপস্থিতিতে এ প্রযুক্তির উন্মোচন করা হয়। বিজ্ঞানভিত্তিক ইরানি কয়েকটি সংস্থার বিশেষজ্ঞরা তৈরি করেছেন এ প্রযুক্তি।

ইরানের এ উদ্ভাবন প্রসঙ্গে সৌরেনা সাত্তারি বলেন, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে ভিত্তি করে করোনা সংক্রমণ ধরার এ নতুন প্রযুক্তি বের করেছে ইরানের কয়েকটি কোম্পানি। আর এর মধ্য দিয়ে করোনা সংক্রমণ সঠিকভাবে নির্ণয়ের নতুন পথ খুলে গেছে বলে জানান তিনি। নতুন এ পদ্ধতিতে করোনা সংক্রমণ বের করতে সিটি স্ক্যানের সহায়তা নিতে হয় বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

তিনি বলেন, গোটা ইরান জুড়ে বহু হাসপাতালে নতুন এ পদ্ধতি বসানো হবে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে প্রযুক্তি খাতে ইরান অনেক পদ্ধতি বের করেছে আর এর মধ্য দিয়ে সব মিলিয়ে করোনা বিরোধী লড়াইয়ের অগ্রভাগে রয়েছে বলেও জানান তিনি। সূত্র: পার্সটুডে


 

 

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *