ব্যাংকের কাউন্টারে উপচে পড়া ভিড় ঝুঁকি বাড়ছে

অর্থনৈতিক বাংলাদেশ

সীমিত আকারে ব্যাংকিং চলছে। সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ব্যাংকিংয়ে ব্যাপকভাবে ভিড় করছেন গ্রাহকরা। রাজধানীর বিভিন্ন ব্যাংক শাখায় এমন চিত্র দেখা গেছে। এতে ঝুঁকি তৈরি হয়েছে সবার। ব্যাংকার গ্রাহক সবাই স্বাস্থ্য ঝুঁকি নিয়েই শাখাগুলোতে লেনদেন করছেন। গতকাল কয়েকটি শাখায় গিয়ে দেখা গেছে গ্রাহকরা টাকা জমা, উত্তোলন বেশি করছেন। কাউন্টারে থাকা ব্যাংক কর্মকর্তাদের বেশিরভাগেরই কোনো নিরাপত্তা সরঞ্জাম নেই। এমনকি ব্যাংক শাখার বাইরে প্রতিরোধমূলক কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। সাবান, স্যানিটাইজার বা এ জাতীয় কোনো কিছুই নেই। গ্রাহকদের অনেকে মাস্ক ব্যবহার করলেও মাস্ক ছাড়াও অনেককে দেখা গেছে। ব্যাংকারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, শাখা খোলা থাকায় সবাইকে অফিসে আসতে হচ্ছে। কিন্তু ব্যাংকের পক্ষ থেকে কোনো পরিবহন সুবিধা দেওয়া হয়নি। ফলে নিজেদের মতো করে আসছেন তারা। এতে আরও বেশি স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। এ ছাড়া ব্যাংক কর্মকর্তারা নিরাপত্তা বাহিনীর হয়রানিরও শিকার হচ্ছেন।

জানতে চাইলে জনতা ব্যাংকের স্থানীয় শাখায় কর্মরত ইঞ্জিনিয়ার মিজানুর রহমান বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, যেভাবে ব্যাংকে প্রতিদিন ভিড় হচ্ছে কোনো ধরনের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা সরঞ্জাম ছাড়া এতে সবাই শঙ্কিত। ব্যাংকাররা নয় শুধু, গ্রাহকরাও ঝুঁকিতে রয়েছেন। এখন  লেনদেনের পরিমাণ প্রতিদিনই বাড়ছে। একই সঙ্গে বাড়ছে গ্রাহকদের ভিড়।

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *